তরুণীর সামনে হস্তমৈথুন করে গ্রেফতার

Stupid man in India
প্রকাশ্যে বাসের মধ্যে তরুণীর প্রতি কুৎসিত অঙ্গভঙ্গি করেছিলেন এক ব্যক্তি। ওই তার ভিডিও ধারণ করছেন; এমনটা দেখেও বন্ধ করেননি নিজের কুকর্ম।

অবশেষে সেই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে কলকাতা পুলিশ। এ ঘটনার পর অসিত রায় নামের ওই ব্যক্তির সঙ্গে আর সংসার না করার কথা জানিয়েছেন তার স্ত্রী।

অসিতকে গ্রেফতারের পর তার স্ত্রী বলেন, আমি একজনের স্ত্রী, একজনের মা। কিন্তু সবার আগে আমি একজন নারী। সেই জায়গা থেকে বলছি, দু’টো ফুলের মতো মেয়ের সঙ্গে যে নোংরামি ও করেছে, তারপর আমার স্বামীর কোনো ক্ষমা নেই। ওকে ঘেন্না করি। আমি চাই ওর কড়া শাস্তি হোক।

তিনি আরও বলেন, ও একটা নোংরা লোক। পরিবারটাকে শেষ করে দিল। আমি ওর সঙ্গে থাকতে চাই না। এই দোকানে আমি আর ওকে ঢুকতে দেব না। ছেলেটাকে কষ্ট করে বড় করেছি। ওকে আঁকড়ে আমি লড়াই করব।

কয়েকদিন আগে বাসে ওই ঘটনার পর ফেসবুকে দেয়া এক পোস্টে ওই তরুণী লেখেন, আমি আর আমার এক বন্ধু সকাল ১২টা নাগাদ হেদুয়া থেকে বাড়ির পথে ফিরছিলাম ৩০বি/১ বাসে।

হঠাৎ বাসের মধ্যে দেখি এই লোকটি আমাদের দিকে তাকিয়ে এরকম অভদ্রতা করছে সবার সামনে। তবুও কেউ কোনও প্রতিবাদ জানালো না। শেষমেশ কন্ডাক্টরকে বলাতে, সে হেসে বলল— কী করব বলুন, কার মনে কী আছে, কী করে বুঝব।

তিনি আরও লেখেন, আমি চিৎকার করলাম বাসে— ওনাকে ধরুন উনি আমাদের সঙ্গে অসভ্যতা করছেন। কেউ কোনো প্রতিবাদ করলেন না। এই ঘটনাটা ১৫দিন আগেও ঘটেছিল। তখন ভয় পেয়ে গিয়েছিলাম, তাই প্রতিবাদ করিনি।

এখন করলাম। বিচার চাই। আর একটা কথা। আগের দিন উনি প্যান্ট খুলে যৌনাঙ্গ বের করে এরকম করেছিলেন। সেটা আরও বাজে দৃশ্য ছিল। সেদিন হাতে প্রমাণ ছিল না তাই কিছু করতে পারিনি…।

এরপর কলকাতা পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে।

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.